ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২২

স্ত্রীকে ছাদে নিয়ে গলা কেটে হত্যা, স্বামী পলাতক

গাজীপুরের গাছা এলাকায় পারিবারিক বিরোধের জেরে স্ত্রী জোনাকি আক্তারকে ছাদে নিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে স্বামী। ঘটনার পর পলাতক রয়েছে স্বামী সুজন মিয়া।

শুক্রবার রাতে নগরীর ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বারবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জোনাকি আক্তার (২১) সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারা বাজার থানার সুরিগাঁও গ্রামের রাকির আলীর মেয়ে। পরিবারের সঙ্গে ভাড়া বাসায় থেকে তিনি অনন্ত ক্যাজুয়াল গার্মেন্টে হেলপার পদে চাকরি করতেন।

গাছা থানার ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ ইসমাইল হোসেন জানান, জোনাকি আক্তারের সাথে প্রায় তিন বছর পূর্বে রাজমিস্ত্রি সুজন মিয়ার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ চলে আসছিল। গেল রাতে সুজন মিয়া তার শ্বশুরের ভাড়া বাসার ছাদে স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

নিহতের বড়বোন রোজিনা জানান, শুক্রবার বিকেলে জোনাকিকে নিয়ে টঙ্গীর মেলায় ঘুরতে যায় সুজন। সন্ধ্যার পর ফিরে তারা বাসার ছাদে যায়। সেখানে ধারাল ছুরি দিয়ে জোনাকীকে গলা কেটে জখম করে পালিয়ে যায় সুজন। ছাদ থেকে হামাগুড়ি দিয়ে কোনক্রমে নিচে নেমে আসে জোনাকি। তারপর শহীদ আহসানউল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মতামত দিন