ঢাকা, বাংলাদেশ │ শনিবার, ২৮ মে ২০২২
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক » মালয়েশিয়া » মালয়েশিয়ায় নিয়োগকর্তা পরিবর্তনের সুযোগ পাচ্ছেন প্রবাসীরা

মালয়েশিয়ায় নিয়োগকর্তা পরিবর্তনের সুযোগ পাচ্ছেন প্রবাসীরা

মালয়েশিয়ায় এবার থেকে নিয়োগকর্তা পরিবর্তনের সুযোগ পাচ্ছেন দেশটিতে বসবাসরত বিদেশি কর্মীরা। এর ফলে মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের দীর্ঘ দিনের একটি সমস্যার সমাধান হলো। এ নিয়ে এখন উচ্ছ্বসিত দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীরা।

দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এখন থেকে বিদেশি কর্মীরা চাইলে মালিক নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান পরিবর্তন করতে পারবেন। তবে নিয়োগকর্তা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম অনুসরণের কথাও বলা হয়েছে। যে সকল নিয়োগকর্তা তাদের কর্মীদের রাখার সক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছে তাদেরকে অন্য নিয়োগকর্তার কাছে আগের নিয়োগকর্তারা চাইলে স্থানান্তর করতে পারবে। এ নিয়ে নিয়োগকর্তারা দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়ে আবেদন করতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, যাদের অপরাধ কর্মের রেকর্ড আছে, যারা আইনি মামলা প্রক্রিয়ার মধ্যে আছে, পলাতক এবং মালয়েশিয়ায় অবৈধভাবে প্রবেশকারীদের জন্য এ সুযোগ প্রযোজ্য হবে না।

মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিরা দীর্ঘদিন ধরে নিয়োগকর্তা পরিবর্তনের সুযোগ না পাওয়ায় দেশটিতে বসবাসরত বাংলাদেশি কর্মীরা নানা অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছিলেন। অবশেষে মালয়েশিয়ার সরকার সেই সুযোগ দেওয়ায় অনেক বৈধ বাংলাদেশি এখন ভালো কাজের সুযোগ পাবেন।

এছাড়া দেশটিতে স্বদেশীদের জন্য কর্মক্ষেত্রে বেশ অগ্রাধিকার দিলেও ঝামেলায় পড়েছিলেন বাংলাদেশিসহ অন্য বিদেশি কর্মীরা। কাজ হারিয়ে অনেকের দেশেও ফেরত যেতে হয়েছিল, কারণ বিগত দিনে নিয়োগকর্তা পরিবর্তনের সুযোগ ছিল না। আবার অনেকেই নিজের কাজ নিয়ে অসন্তুষ্ট হলেও তা পরিবর্তনের সুযোগ না থাকায় অনেককে অবৈধ হয়ে দেশে ফিরতে হয়েছিল।

এদিকে, মালয়েশিয়ায় চলমান কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ হাইকমিশনার অনুরোধের প্রেক্ষিতে এই প্রথম মঙ্গলবার (১৬ জুন) দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রী দাতুক সেরি ইসমাইল সাবরি বিন ইয়াকুব এর সাথে বাংলাদেশের হাইকমিশনার মুহ. শহীদুল ইসলামের সৌজন্য সাক্ষাৎ হয়েছে। সাক্ষাতকারে তারা পারস্পরিক সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কুশলাদি বিনিময় ছাড়াও রোহিঙ্গা ইস্যু, অবৈধ শ্রমিক ইস্যু এবং দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্টসহ অন্যান্য বিষয়সহ দু’দেশের মধ্যে বিদ্যমান সুসম্পর্ক ও সহযোগিতা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আরো ঘনিষ্ঠ হবার বিষয়ে একমত পোষণ করেন। এছাড়া মালয়েশিয়ায় কর্মরত শ্রমিকদের সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে ও আলোচনা হয়।

মতামত দিন