শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১

বাংলা ব্লকেডে অচল রাজধানীর সড়ক, শাহবাগ অভিমুখে নেই কোনো যান

বাংলা ব্লকেডে অচল রাজধানীর সড়ক, শাহবাগ অভিমুখে নেই কোনো যান

কোটাবিরোধীদের আন্দোলনে সড়কে নেই যানবাহন। ছবি : সংগৃহীত

আজ সোমবার (৮ জুলাই) বিকেল ৪টার আগেই কোটাবিরোধীদের স্লোগানে মুখর হয়ে ওঠে শাহবাগ। সেই স্লোগান ছড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন পয়েন্টে। এতে প্রথমে সড়কে দেখা দেয় যানজট। পরে সেই জট ধীরে ধীরে কমে শাহবাগ অভিমুখে রাস্তা হয়ে যায় ফাঁকা। এখন সড়কে যানবাহন উঠলেই করা হচ্ছে জিজ্ঞাসাবাদ। অনেকে আবার অবরোধে ফাঁকা সড়কে ক্রিক্রেট-লুডু খেলা করছেন। এদিকে, সড়কে যানবাহন না থাকায় মেট্রোরেলে দেখা দিয়েছে ভিড়। টিকিট কাটার জন্য লাইন ধরে দাঁড়িয়ে আছেন যাত্রীরা। সেই যাত্রীদের সারি পৌঁছেছে নিচ তলার সিঁড়ি পর্যন্ত।

কোটাবিরোধীদের একজন সমন্বয়ক সার্জিস আলম বলেন, কোটা সংবিধানে বাধ্যতামূলক নয়। এটি দিতে বাধ্য করা হলে সংবিধানের জন্য সাংঘর্ষিক হয়। একদিকে মেধা, অন্যদিকে সাংবিধানকে সমুন্নত রাখতে এই আন্দোলনে নেমেছেন তারা।

আগামীকালও বাংলা ব্লকেড চলবে উল্লেখ করে নাহিদ নামে আরেক নেতা জানান, আগামী রোববার পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের ধর্মঘট ক্লাস পরীক্ষা বর্জন অব্যাহত থাকবে। ব্লকেড উপলক্ষে আগামীকাল সাড়ে ৩টায় কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে জড়ো হবে। তিনি বলেন, ‘ব্লকেড কর্মসূচি পালন করব। কোনো বাধা এলে প্রতিহত করা হবে।’

সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত সরেজমিনে শাহবাগ, সায়েন্স ল্যাব, বাংলামোটর, কারওয়ান বাজার সার্ক ফোয়ারা, ফার্মগেট এলাকা পরিদর্শন করে দেখা গেছে, শাহবাগ অভিমুখে সড়কগুলোতে কোনো যানবাহন নেই। যদিও কেউ সড়কে উঠছে, সঙ্গে সঙ্গে আটকে দেওয়া হচ্ছে তাকে। করা হচ্ছে জিজ্ঞাসাবাদ। অসুস্থ ও গণমাধ্যমকর্মী বাদে কাউকে যানে চলাচল করতে দিচ্ছেন না কোটাবিরোধীরা।

সচিবালয় থেকে শাহবাগ হয়ে বাংলামোটর দিয়ে ফার্মগেট পর্যন্ত, সায়েন্স ল্যাব থেকে নিউমার্কেট হয়ে পলাশি দিয়ে শাহবাগ পর্যন্ত, সায়েন্স ল্যাব থেকে পান্থপথ হয়ে কারওয়ান বাজার পর্যন্ত ও গ্রিন রোড হয়ে ফার্মগেট পর্যন্ত সড়ক ফাঁকা।

আরও পড়ুন:

আরও পড়ুন

বাংলার শিরোনাম ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

সর্বশেষ সংবাদ