ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২২

ড্রোন হামলায় করা ভুলকে বৈধ দাবি যুক্তরাষ্ট্রের

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে সন্দেহভাজন আইএস সদস্যদের গাড়ি লক্ষ্য করে কাবুলে একটি ড্রোন হামলা চালিয়েছিলো যুক্তরাষ্ট্র। এতে ১০ জন আফগান বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়। ওই ড্রোন হামলা চালিয়ে যুক্তরাষ্ট্র কোনো আইন লঙ্ঘন করেনি বলে জানিয়েছে মার্কিন প্রতিরক্ষা অধিদফতর পেন্টাগন। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, হামলার পরেই পেন্টাগন একটি তদন্ত শুরু করে। গতকাল বুধবার (৩ নভেম্বর) পেন্টাগনের মহাপরিদর্শক ঘটনাটিকে ‘দুঃখজনক ভুল’ বলে অভিহিত করেছেন। তবে এই হামলাকে বৈধ হিসেবেই আখ্যা দইয়েছেন তিনি।

ড্রোন হামলার ঘটনাটি ঘটে গত ২৯ আগস্ট। এতে তিনজন প্রাপ্তবয়স্কসহ নিহত হয় ৭ শিশু। নিহত তিন প্রাপ্তবয়স্কের একজন যুক্তরাষ্ট্রের একটি সাহায্য সংস্থার হয়ে কাজ করতেন।

ওইদিন জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের আফগানিস্তান শাখার (আইএস-কে) সন্দেহভাজন হামলাকারীদের ব্যবহৃত গাড়ি ও বাড়ি লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা চালানোর কথা প্রাথমিকভাবে জানিয়েছিলো যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু মার্কিন ড্রোন হামলায় বেসামরিক আফগান নাগরিক নিহত হওয়ায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে তারা।

ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদনে মার্কিন বিমানবাহিনীর মহাপরিদর্শক লেফটেন্যান্ট জেনারেল সামি ডি সেইড বলেছেন, তদন্তে যুদ্ধসংক্রান্ত আইনসহ কোনো আইন লঙ্ঘনের প্রমাণ পাওয়া যায়নি। নিশ্চিতকরণসহ নানা ভুলে দুঃখজনক এ ঘটনা ঘটেছে। সত্যিকার অর্থেই এটা ছিল ভুল। তবে এটা অপরাধমূলক কোনো কর্মকাণ্ড ছিল না।

মতামত দিন