ঢাকা, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
প্রচ্ছদ » ঢাকা » হাতিরঝিল থানায় আসামির মৃত্যু, স্বজনদের থানা ঘেরাও

হাতিরঝিল থানায় আসামির মৃত্যু, স্বজনদের থানা ঘেরাও

হাতিরঝিল থানায় আসামির মৃত্যু, স্বজনদের থানা ঘেরাও

রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় সুমন শেখ (২৪) নামে আসামি আত্মহত্যা করেছেন। শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। শনিবার (২০) বিকেলে এ ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ স্বজনরা থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছে। সুমনের গ্রামের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ জেলায়। তার বাবার নাম পিয়ার আলী। তিনি তার স্ত্রী ও ১০ বছরের এক ছেলেকে নিয়ে রামপুরায় থাকতেন।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার বিকেলে সুমন শেখকে রামপুরার ওয়াপদা রোডের ভাড়া ভাসা থেকে চুরির মামলায় গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে রাত সাড়ে তিনটার দিকে তিনি তার পরনের ট্রাউজার খুলে আত্মহত্যা করেন। সকালে বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

সুমনের স্বজন সোহেল আহমেদ জানান, সুমন পিউরিড নামের একটি প্রতিষ্ঠানে পানির ফিল্টার বিক্রির কাজ করতেন। সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে ৫৫ লাখ টাকা চুরির অভিযোগ তোলা হয়। সেই সময় তার কাছ থেকে ৩ লাখ ১৩ হাজার টাকাও পান পিউরিড কোম্পানির লোকজন। পরে মামলা করে কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার সেই মামলায় হাতিরঝিল থানা পুলিশ তাকে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে রামপুরার ভাড়া বাসা থেকে ধরে নিয়ে আসে। রাত সাড়ে তিনটার দিকে তিনি তার পরনের ট্রাউজার দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে তারা থানা থেকে খবর পেয়ে ছুটে যান এবং সুমনের আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত হতে থানা হাজতের সিসি ফুটেজে দেখেন। তবে এ ঘটনায় সেখানে পুলিশ দায়িত্বে অবহেলা করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, একজন মানুষ যদি থানায় গিয়েও আত্মহত্যা করে তাহলে তো দুঃখজনক। এখানে বলতেই হবে ওইখানে যারা দায়িত্বরত ব্যক্তিরা অবহেলা করেছেন। তাদের অবহেলা বা ডিউটিতে ফাঁকির কারণে আজ সুমনকে জীবন দিতে হলো।

এ ঘটনার পর সুমনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।

মতামত দিন