সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজে ছাত্রলীগের ঢুকতে মানা

রাজধানীর মিরপুরের পল্লবীর সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ক্যাম্পাসে ঢুকতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অধ্যক্ষ জহুরুল আলম এমন নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন বলে অভিযাগ করেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. রাশেদুল ইসলাম রাব্বী।

সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজের সামনে মঙ্গলবার বেলা ১২টায় ফেসবুক লাইভে নিজেদের অসহায়ত্বের কথা তুলে ধরেন ছাত্রলীগ নেতা রাব্বী ও সংগঠনের অন্য সদস্যরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই ভিডিটি মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে পড়ে।

সাড়ে চার মিনিটের ওই ভিডিওতে দেখা যায় কলেজে ঢুকতে না পেরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা গেটের বাইরে দাঁড়িয়ে বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন। বিক্ষোভকারীরা অধ্যক্ষের দুর্নীতি, ভর্তির অতিরিক্ত ফি আদায়, কলেজ ড্রেস বানানোর নামে অতিরিক্ত টাকা আদায় ও স্বেচ্ছাচারিতার সমালোচনা করে বিভিন্ন স্লোগান দেন।

রাব্বী অভিযোগ করে বলেন, ‘অধ্যক্ষ জানেন ক্যাাম্পাসে ছাত্রলীগ থাকলে তার দুর্নীতির গোমর ফাঁস হয়ে যাবে। তার বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ তদন্ত করার জন্য দুদক একটি চিঠিও দিয়েছে ।’

তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন, ছাত্রলীগ করার কারণে সাধারণ ছাত্ররাও এ কলেজে ঢুকতে পারে না।

ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান হৃদয় বলেন, ‘সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি বছর খানেক আগে বিলুপ্ত করা হয়েছে।’

অধ্যক্ষ জহুরুল আলম বলেন, ‘আমার কলেজে ছাত্রলীগের কোন কমিটি নেই। আজ যারা এসেছিলো তারা বহিরাগত। খেলাধূলার একটা অনুষ্ঠান ছিল। বহিরাগত ও অছাত্ররা চেয়েছিলো কলেজে ঢুকে সেই অনুষ্ঠান পরিচালনা করতে। তারা আমাকেও আক্রমণ করতে চেয়েছিল। সরকারের গোয়েন্দা সংস্থার লোকজনও তা জানে।’

পল্লবী থানার ওসি পারভেজ ইসলাম বলেন, ‘সকালে সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজের সামনে লোকজন জড়ো হয়েছে শুনে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।’

মতামত দিন