ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রে ওয়ালমার্ট স্টোরে বন্দুক হামলা, বেশ কয়েকজন নিহত

যুক্তরাষ্ট্রে ওয়ালমার্ট স্টোরে বন্দুক হামলা, বেশ কয়েকজন নিহত

যুক্তরাষ্ট্রে আবারও বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে বেশ কয়েকজন নিহত হয়েছেন। আহতও হয়েছেন কয়েকজন। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) রাতে উত্তর আমেরিকার এই দেশটির ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের চেসাপিক শহরে অবস্থিত মার্কিন বহুজাতিক খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালমার্টের একটি স্টোরে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে গোলাগুলির এ ঘটনায় বন্দুকধারী নিজেও প্রাণ হারিয়েছে বলে সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

আজ বুধবার (২৩ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স, সিএনএন ও নিউইয়র্ক টাইমস।

রয়টার্স বলছে, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাতে ভার্জিনিয়ার চেসাপিকের ওয়ালমার্টে গোলাগুলির ঘটনায় বেশ কয়েকজনের প্রাণহানি ঘটেছে এবং বন্দুকধারী নিজেও মারা গেছে বলে চেসাপিক সিটি জানিয়েছে।

টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় চেসাপিক সিটি জানিয়েছে, ‘শহরের স্যাম সার্কেলের ওয়ালমার্টে গোলাগুলি ও প্রাণহানির ঘটনা নিশ্চিত করেছে চেসাপিক পুলিশ। অভিযুক্ত বন্দুকধারী মারা গেছে।’

অবশ্য বন্দুক হামলায় মৃত ও আহতের সংখ্যা এখনো স্পষ্ট হয়নি। তবে এই ঘটনায় ১০ জনের বেশি মানুষ মারা যায়নি বলে স্থানীয় মিডিয়া আউটলেট ওয়েভি জানিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে রয়টার্সের পক্ষ থেকে ওয়ালমার্ট ও চেসাপিক পুলিশ বিভাগে যোগাযোগ করা হলেও তাৎক্ষণিকভাবে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি বলে জানানো হয়েছে।

এদিকে সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, চেসাপিক পুলিশ বিভাগের একজন মুখপাত্র বলেছেন, মঙ্গলবার রাতে চেসাপিক শহরের ওয়ালমার্ট স্টোরের ভেতরে একাধিক লোককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

পুলিশ বিভাগের মুখপাত্র লিও কোসিনস্কি এক সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, অভিযুক্ত বন্দুকধারীকে মঙ্গলবার রাতেই দোকানে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। তবে তার নাম কর্তৃপক্ষ প্রকাশ করেনি।

ঠিক কতজন লোককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে তা নির্দিষ্ট করে বলেননি কোসিনস্কি। তবে তিনি বলেছেন, গোলাগুলির ঘটনায় নিহতের সংখ্যা ১০ জনেরও কম বলে বিশ্বাস করেন তিনি।

মতামত দিন