ভাতের বিনিময়ে পড়াতে চাওয়া আলমগীরকে চাকরি দিলো ‘স্বপ্ন’

আলমগীরের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হয়।

দুই বেলা ভাতের বিনিময়ে পড়াতে চাওয়া বগুড়ার সেই আলমগীর কবিরকে চাকরি দিয়েছে সুপারশপ স্বপ্ন। বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) তার চাকরি নিশ্চিত করে স্বপ্ন।

জানা গেছে, দুপুর ১২টার দিকে আলমগীর বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তীর কার্যালয়ে যান। প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে তার সঙ্গে আলাপ করার পর সেখানে উপস্থিত হন স্বপ্নের রিটেইল এক্সপেনশন বিভাগের পরিচালক সামসুদ্দোহা শিমুল। এরপর জুমে আলমগীর কবিরের ইন্টারভিউ নেওয়া হয়।

এ সময় আলমগীর কবিরসহ জুমে যুক্ত হন স্বপ্নের নির্বাহী পরিচালক সাব্বির হাসান নাসির, রিটেইল এক্সপেনশন বিভাগের পরিচালক সামসুদ্দোহা শিমুল, মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান শাহ মো. রিজভী রনী এবং মিডিয়া অ্যান্ড পি আর ম্যানেজার মো. কামরুজ্জামান মিলু।

ইন্টারভিউ শেষে আলমগীর কবিরকে স্বপ্নের ঢাকার তেজগাঁওস্থ অফিস কার্যালয়ে বিজনেস রিসার্চ বিভাগে রিসার্চ অ্যাসোসিয়েট হিসেবে নিয়োগের জন্য বলা হয়।আলমগীর কবিরের সম্মতি পাওয়ার পর তার হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেন বগুড়ার এসপি সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী এবং স্বপ্নের রিটেইল এক্সপেনশন বিভাগের পরিচালক সামসুদ্দোহা শিমুল।

আর্থিক অনটনের কারণে আলমগীর কবিরের তিনবেলা ঠিকমতো খাওয়া হচ্ছিল না। এ কারণে উপায় না দেখে সম্প্রতি তিনি আশ্রয় নেন বিজ্ঞাপনের। দেওয়ালে সাঁটানো বিজ্ঞাপনে তিনি বলেন, ‘শুধুমাত্র দু-বেলা ভাতের বিনিময়ে পড়াতে চাই।’

দেওয়ালে দেওয়ালে লাগানো সেই বিজ্ঞাপনের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করেন এক ব্যক্তি। এরপর থেকে নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয় পোস্টটি।

মতামত দিন