বুড়িগঙ্গায় উদ্ধার হওয়া সেই লাশটি ছাত্রলীগ নেতার

বুড়িগঙ্গায় উদ্ধার হওয়া সেই লাশটি ছাত্রলীগ নেতার

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বুড়িগঙ্গা নদী থেকে উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত লাশটির পরিচয় পেয়েছে পুলিশ। নিহতের নাম দুরন্ত বিপ্লব (৪২)। তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। তিনি নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা থানার ছোট ইলাশপুর গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে।

এর সত্যতা নিশ্চিত করে পাগলা নৌপুলিশের এসআই শাহজাহান সাজু জানান, ৭ নভেম্বর কেরানীগঞ্জের কামরাঙ্গীরচরের থুতা খেয়াঘাট দিয়ে নদী পারাপারের সময় দুই ট্রলারের সংঘর্ষে কয়েকজন ট্রলার যাত্রী নদীতে পড়ে যায়। ওই সময় দুরন্ত বিপ্লব সাঁতার না জানায় পানিতে ডুবে যান।

এ ঘটনায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় পরিবারের পক্ষ থেকে নিখোঁজের সন্ধান চেয়ে একটি জিডি করা হয়। লাশটি শনিবার বিকালে বুড়িগঙ্গা নদীর পানগাঁও এলাকা থেকে উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

এর পর দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় লাশের ছবি পাঠানো হয়। তখন পুলিশ নিখোঁজ জিডি যারা করেছেন, তাদের খবর দিলে একজন এসে লাশটি দুরন্ত বিপ্লবের দাবি করেন।

তিনি আরও জানান, লাশটি বেশ কিছু দিন আগের হওয়ায় লাশের চেহারা বিকৃত হয়ে গিয়েছিল। নিহতের পরনে ছিল জিন্সের প্যান্ট ও সাদা ফতুয়া।

বোনজামাই ইমরুল খান দুরন্ত বিপ্লবের পরিচয় উল্লেখ করে বলেন, বিপ্লব বিবাহিত, তার স্ত্রী ও এক কন্যাসন্তান আছে। বর্তমানে তিনি ব্যবসা করেন। তার বাবা-মা রাজধানীর মোহাম্মদপুরে থাকেন এবং বিপ্লব কেরানীগঞ্জে বসবাস করেন।

তিনি আরও বলেন, নদীতে ডুবে মৃত্যুর বিষয় আমাদের জানা নেই। তবে ৭ নভেম্বর থেকে বিপ্লব নিখোঁজ রয়েছে এবং জিডি করেছি। ময়নাতদন্ত রিপোর্টে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

মতামত দিন