মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১

প্রেমিককে ভিডিও কলে রেখে আত্মহত্যা করল প্রেমিকা

প্রেমিককে ভিডিও কলে রেখে আত্মহত্যা করল প্রেমিকা

প্রেমিককে ভিডিও কলে রেখে আত্মহত্যা করল প্রেমিকা

প্রেমিককে ভিডিও কলে রেখে আত্মহত্যা করল প্রেমিকা

প্রেমিককে ভিডিও কলে রেখে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন কেয়া আক্তার রত্না (২০) নামে এক শিক্ষার্থী। তিনি বরিশালের রহমতপুর কৃষি কলেজের চতুর্থ সেমিস্টারের শিক্ষার্থী।

শনিবার (১৪ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে কলেজের ছাত্রী হলের ৩০৪ নম্বর কক্ষে ফ্যানের হুকের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন ওই শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় প্রেমিক অন্তরকে গ্রেফতার করেছে বিমানবন্দর থানা পুলিশ।

রোববার (১৫ জানুয়ারি) বরিশাল মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলাল উদ্দিন সময় সংবাদকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, রত্নার সঙ্গে দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক ছিল অন্তর আলী নামে এক যুবকের। তারা দুজনই বরিশাল বাবুগঞ্জের রহমতপুর কৃষি কলেজের শিক্ষার্থী। কয়েক দিন ধরে দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল। পরে রত্না তার প্রেমিক অন্তরের ফোনে ভিডিও কল করে আত্মহত্যা করেন।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলা হয়েছে। এতে প্রেমিক অন্তরকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে এয়ারপোর্ট থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মো. জামাল হোসেন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অন্তর আলী রত্নার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছেন। আত্মহত্যার আগের ভিডিও কলসহ রত্নার মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। সেখানে ভিডিও কলের প্রমাণ পাওয়া গেছে।

কলেজের নথিপত্রের তথ্যানুযায়ী কেয়া আক্তার রত্মা পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার ছোট ডাকুয়া গ্রামের বশির মিয়ার মেয়ে। অপরদিকে প্রেমিক অন্তর আলী গাজীপুর জেলার সদর উপজেলার হাতিয়া গ্রামের রাজু আহমেদের ছেলে।

আরও পড়ুন:

আরও পড়ুন

বাংলার শিরোনাম ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

সর্বশেষ সংবাদ