জীবন বাঁচাতে সৌদির সেই ফুটবলারকে পাঠানো হলো জার্মানিতে

জীবন বাঁচাতে সৌদির সেই ফুটবলারকে পাঠানো হলো জার্মানিতে

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচে ভয়াবহ এক ইনজুরিতে পড়েছেন ফুটবলার! নিজ দেশের গোলকিপারের সঙ্গে সংঘর্ষে সর্বনাশ সৌদি আরবের ফুটবলার ইয়াসির আল শাহরানির।

মঙ্গলবার আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচে ভয়াবহ এক ইনজুরিতে পড়েছেন তিনি। এই ফুটবলারের চোয়াল ও মুখের বাঁ দিকের হাড় ভেঙে গেছে।

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ২-১ গোলের সেই স্বপ্নের জয়টা উদযাপন করতে পারলেন না সৌদি আরবের ডিফেন্ডার। অতিরিক্ত সময়ে তখন খেলা। এমন সময় ঘটল ভয়ানক সেই ঘটনা। আর্জেন্টিনার একটি আক্রমণ ঠেকাতে গিয়ে সামনে চলে আসেন সৌদি আরবের গোলকিপার মোহাম্মদ আল-ওয়াইস। ঠিক তখনই ইয়াসির লাফিয়ে উঠে বল ধরতে গিয়ে পড়েন বিপাকে। গোলকিপারের হাঁটু বেশ জোরে আঘাত করে তার মুখে।

তখন অনেকটা সময় মাঠেই পড়ে ছিলেন ইয়াসির। রক্তে ভেসে যায় তার মুখ। তারপরই স্ট্রেচারে করে মাঠের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। এক্স-রের পর জানা যায় চোয়াল এবং মুখের বাঁ দিকের হাড় ভেঙে গেছে। ভেতরে রক্তক্ষরণ হওয়ায় তার অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন। জীবনটাও শঙ্কায়।

ঠিক এমন সময় সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান এগিয়ে আসেন। ইয়াসিরের জীবন বাঁচাতে নির্দেশ দেন চিকিৎসার জন্য প্রাইভেট বিমানে করে যেন তাকে পাঠানো হয় জার্মানিতে। তার উন্নত চিকিৎসার পুরো দায়িত্ব নিয়েছে সৌদি আরবের সরকার। ক্রাউন প্রিন্স নিজে নির্দেশ দিয়েছেন শাহরানির চিকিৎসায় যেন কোন কমতি না হয়। নিজেই খোঁজ রাখছেন।

ধারণা করা হচ্ছে, এই চোটে কাতার বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে যেতে পারেন ইয়াসির আল শাহরানি। এই ধাক্কা সামলে উঠা সহজ নয়!

মতামত দিন