করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন বাংলাদেশে শনাক্ত

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো শনাক্ত হয়েছে। ভাইরাসটির নতুন এ ধরনে দুইজন আক্রান্ত হয়েছেন।

তারা দুজনই জিম্বাবুয়েফেরত জাতীয় নারী ক্রিকেট দলের সদস্য। আক্রান্ত দুই নারী ক্রিকেটার সুস্থ আছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক শনিবার ঢাকা শিশু হাসপাতালের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন উদ্ভোধন উপলক্ষে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

এছাড়া একই তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এএসএম আলমগীর।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘আমাদের দুজন যে নারী ক্রিকেটারের শরীরে ওমিক্রন ধরন পাওয়া গেছে, তাদের আমরা কোয়ারেন্টিনে রেখেছি। তারা সুস্থ আছেন। তাদের যা যা চিকিৎসা দরকার, সেটি চলছে। তাদের মাঝে মাঝেই পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে, তাদের শরীরে এখন ওমিক্রনের লোডটা কেমন আছে। পুরোপুরি সেরে উঠতে দুই সপ্তাহ লাগতে পারে তাদের।’

এর আগে তিন দফায় পরীক্ষা-নীরিক্ষা করা হয় দুই ক্রিকেটারের নমুনার। আরো নিশ্চিত হতে গত সোমবার সন্ধ্যায় আবারও তাদের নমুনা নেয় আইইডিসিআর। অবশেষে তারা ওমিক্রনে আক্রান্ত বলে নিশ্চিত হয়েছে আইইডিসিআর।

এর আগে গত ৭ ডিসেম্বর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম জানিয়েছিলেন, ‘দুই নারী ক্রিকেটারকে হোটেল সোনারগাঁওয়ে একই রুমে রাখা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় আবারও তাদের নমুনা সংগ্রহ করেছে আইইডিসিআর। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরই বলা যাবে, তারা ওমিক্রনে আক্রান্ত কি না।’

উল্লেখ্য, গত ১ ডিসেম্বর জাতীয় নারী ক্রিকেট দল জিম্বাবুয়ে থেকে ফিরে আসে। তাদের সবাইকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনের জন্য হোটেল প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ে পাঠানো হয়। এরপর গত ১, ৩ এবং ৫ ডিসেম্বর তিন দফায় তাদের করোনা পরীক্ষা করা হয়। তৃতীয় টেস্টের পর সোমবার দুই ক্রিকেটারের শরীরে করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়।

তখন থেকেই নারী ক্রিকেট দলের সবাই আইসোলেশনে রয়েছেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দুই কর্মকর্তা নিয়মিত তাদের বিষয়টি দেখছেন।

মতামত দিন