ইউক্রেনে নিষিদ্ধ ঘোষিত বোমা ব্যবহার করেছে রাশিয়া!

ইউক্রেনে চলমান রুশ আগ্রাসনে নিষিদ্ধ ভ্যাকুয়াম বোমার ব্যবহার করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আগ্রাসন শুরুর পঞ্চম দিনে সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ইউক্রেনে নিষিদ্ধ এই অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায় রাশিয়া। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার মার্কিন আইনপ্রণেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর জাতিসংঘে নিযুক্ত ইউক্রেনের দূত ওকসানা মারকারোভা এ দাবি করেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘ইউক্রেনে হামলা চালাতে তারা (রাশিয়া) আজ ভ্যাকুয়াম বোমার ব্যবহার করেছে। যদিও জেনেভা কনভেনশনের মাধ্যমে এই বোমার ব্যবহার নিষিদ্ধ।’

বিবিসি জানায়, নিষিদ্ধ ভ্যাকুয়াম বোমা ব্যবহার করে হামলা চালানোর বিষয়ে ইউক্রেনের এই অভিযোগ স্বাধীনভাবে যাচাই করা যায়নি।

সাধারণত, প্রচলিত গোলাবারুদ ব্যবহার করা হয় না ভ্যাকুয়াম বোমায় বা থার্মোবারিক অস্ত্রগুলোতে। উচ্চ-তাপমাত্রার অত্যন্ত শক্তিশালী বিস্ফোরণ এবং চাপ তরঙ্গ তৈরি করতে থার্মোবারিক অস্ত্র বা ভ্যাকুয়াম বোমাগুলো সাধারণত বায়ু থেকে অক্সিজেন টেনে নেয়।

এই ধরনের অস্ত্রগুলোর বিস্ফোরণের মাধ্যমে সৃষ্ট তরঙ্গ প্রচলিত অন্য ঘনীভূত বিস্ফোরকের তুলনায় উল্লেখযোগ্যভাবে দীর্ঘস্থায়ী হয়ে থাকে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচের তথ্য অনুযায়ী, রুশ প্রজাতন্ত্র চেচনিয়ায় এর আগে এই ধরনের অস্ত্রের ব্যবহার করেছে। এছাড়া গত শনিবার রাশিয়ার বেলগোরোড শহরের কাছে একটি থার্মোবারিক রকেট লঞ্চার দেখার খবর জানিয়েছিল মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন।

মতামত দিন